রংপুর সিটি করপোরেশন নির্বাচন: ইভিএমের কেন্দ্রে জয়ী লাঙ্গল

Thu, Dec 21, 2017 7:28 PM

রংপুর সিটি করপোরেশন নির্বাচন: ইভিএমের কেন্দ্রে জয়ী লাঙ্গল
  • ন্যাশনাল ডেস্কঃ
রংপুর সিটি করপোরেশন নির্বাচনের ‘উৎসবমুখর’ পরিবেশ ভবিষ্যতের জন্য ‘মডেল’ হয়ে থাকবে বলে মনে করছে নির্বাচন কমিশন।

বৃহস্পতিবার রংপুরের ভোট শেষে কমিশনের পক্ষে এক সংবাদ ব্রিফিংয়ে নির্বাচন কমিশনার মো. রফিকুল ইসলাম বলেন, “আমরা মডেল নির্বাচন করার কথা আপনাদের বলেছিলাম। রংপুরে উৎসবমুখর পরিবেশে ভোট হয়েছে; একটি মডেল নির্বাচন হয়েছে।”

বৃহস্পতিবার সকাল ৮টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত ১৯৩টি কেন্দ্রে এ নির্বাচনের ভোটগ্রহণ হয়। মেয়র পদে দলীয় প্রতীকে সাত প্রার্থীর সঙ্গে ৩৩ ওয়ার্ডে কাউন্সিলর পদে প্রার্থী ছিলেন ২৭৬ জন।

এবারের নির্বাচনে কোনো কেন্দ্র থেকেই গোলযোগের কোনো খবর আসেনি, যাকে নজিরবিহীন বলেছেন ভোটাররা।

বেশ কয়েকটি কেন্দ্র থেকে বিএনপির প্রার্থীর এজেন্টদের বের করে দেওয়া হয়েছে বলে দলটি অভিযোগ করলেও বিকালে ভোট শেষ হওয়ার আগেই প্রধান নির্বাচন কমিশনার কে এম নূরুল হুদা বলেন, ওই অভিযোগ সঠিক নয় বলে তিনি মনে করছেন।

ভোট শেষ হওয়ার এক ঘণ্টা পর বেলা ৫টায় আগারগাঁওয়ে নির্বাচন ভবনে ব্রিফিংয়ে এসে রফিকুল ইসলামও বলেন, কোনো ধরনের গোলযোগ, অপ্রীতিকর ঘটনা এ নির্বাচনে ঘটেনি।

আর বিএনপির অভিযোগের বিষয়ে এ নির্বাচন কমিশনার বলেন, “যে কেউ অভিযোগ করতে পারেন; আমরা মনে করি তা সঠিক নয়। তবুও অভিযোগ যেহেতু করেছে, আমরা তা খতিয়ে দেখব।”

এ নির্বাচনে একটি কেন্দ্রে  ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনে (ইভিএম) ভোটগ্রহণ হয়েছে।২০৫৯ জন ভোটারের মধ্যে সেখানে ভোট দিয়েছেন ১২৫২ জন; অর্থাৎ ভোট পড়েছে ৬০.৮১%।

রফিকুল ইসলাম বলেন, “রংপুরে ৬০-৭০ শতাংশ ভোট পড়বে বলে ধারণ করা হচ্ছে। তবে ভোটের ফলাফল শেষেই চূড়ান্ত হিসাব আসবে।”

ভোট শেষ হওয়ার ঘণ্টাখানেক আগে সিইসি নূরুল হুদা বলেন, “সুষ্ঠু ও সুন্দর ভোট; কোথাও কোনো অভিযোগ নেই। সার্বিক পরিস্থিতি নিয়ে আমরা সন্তুষ্ট।”

কুমিল্লা সিটি করপোরেশনে ভোটের পর নিজেদের মেয়াদের এক বছরের মাথায় রংপুরে শান্তিপূর্ণ এই ভোটকে ‘দৃষ্টান্তমূলক’ বলেই মনে করছে কে এম নূরুল হুদা নেতৃত্বাধীন ইসি। এই কমিশনের অধীনেই আগামী বছরের শেষ দিকে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন হবে।

সংসদের আগে জুনের মধ্যে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র পদে উপ নির্বাচন, উত্তর-দক্ষিণে ৩৬টি ওয়ার্ডে সাধারণ নির্বাচন, রাজশাহী, খুলনা, বরিশাল ও সিলেট সিটি করপোরেশনেরও ভোট করতে হবে এ ইসিকে।

২০১৭ সালের ফেব্রুয়ারিতে যোগ দেওয়া পাঁচ সদস্যের এ কমিশনের মেয়াদ শেষ হবে ২০২২ সালের ফেব্রুয়ারিতে।

ইভিএমের কেন্দ্রে জয়ী লাঙ্গল

বৃহস্পতিবার বিকালে ভোটগ্রহণ শেষের ৪৫ মিনিটের মাথায় কেন্দ্রটির ফলাফল জানান প্রিজাইডিং কর্মকর্তা; যেখানে ইভিএম নিয়ে ভোটারদের মধ্যে উচ্ছ্বাস ছিল সকাল থেকে।

এই কেন্দ্রে লাঙ্গল প্রতীকে জাতীয় পার্টির মেয়র প্রার্থী মোস্তাফিজার রহমান মোস্তফা পেয়েছেন ৬৭৪টি।

নৌকা প্রতীকে আওয়ামী লীগের প্রার্থী সরফুদ্দীন আহমেদ ঝন্টু ৩৩৪টি এবং ধানের শীষে বিএনপির প্রার্থী কাওসার জামান বাবলার ১১৭টি ভোট।

অন্যদের মধ্যে মই প্রতীকে বাসদের আবদুল কুদ্দুস ২১, হাতপাখা প্রতীকে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের এ টি এম গোলাম মোস্তফা বাবু ৬১, আম প্রতীকে ন্যাশনাল পিপলস পার্টির সেলিম আখতার ৯ এবং হাতি প্রতীকে স্বতন্ত্র প্রার্থী হোসেন মকবুল শাহরিয়ার আসিফ ১১ ভোট পেয়েছেন।

সকাল ৮টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত রংপুর সিটির ১৯২টি কেন্দ্রে সনাতন পদ্ধতিতে ভোটগ্রহণ হলেও ২৫ নম্বরের ওয়ার্ডের ১৪১ নম্বর কেন্দ্রে ভোট নেওয়া হয় ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনে (ইভিএম)।

সরকারি বেগম রোকেয়া কলেজে স্থাপিত এই কেন্দ্রের ছয়টি বুথে ইভিএমে ভোটগ্রহণ করা হয়।

এই কেন্দ্রের মোট ২ হাজার ৫৯ জনের ভোটারের মধ্যে ১২৫২ ভোট দিয়েছেন বলে জানান প্রিজাইডিং কর্মকর্তা আজহারুল ইসলাম দুলাল; যা মোট ভোটের ৬০ দশমিক ৮১ শতাংশ।

২০১২ সালের সিটি নির্বাচনেও রংপুরে বুয়েটের তৈরি পুরনো ইভিএমে স্বল্প পরিসরে ভোট হয়েছিল। সেই প্রকল্প পরে বন্ধ হয়ে যায়।

বাংলাদেশ মেশিন টুলস ফ্যাক্টরির সহযোগিতায় ইসির নিজস্ব উদ্যোগে তৈরি নতুন ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনের (ইভিএম) প্রথম পরীক্ষা রংপুরেই করা হয়।

এতে সফল হওয়ায় সন্তুষ্ট সিইসি কে এম নূরুল হুদাও।

 


সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে
উপরে যান